জগদীশ চন্দ্র বসুর নামে বিশ্ববিদ্যালয় দাবি দীর্ঘদিনেরঃ মাহী বি চৌধুরী

bose uniমুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগরের রাড়িখালে জগৎ বিখ্যাত বিজ্ঞানী স্যার জগদীশ চন্দ্র বসুর নামে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে মুন্সিগঞ্জ-১ (শ্রীনগর ও সিরাজদিখান) আসনের  সংসদ সদস্য মাহী বি চৌধুরীর কাছে খসড়া আবেদনপত্র হস্তান্তর করেন আগামীর বাংলাদে

শে এর প্লাটফর্মের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান উপদেষ্টা শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক আবু জাফর আহমেদ মুকুল।

সরকারের ইশতেহার অনুযায়ী সকল স্তরে শিক্ষার মান উন্নয়ন এবং শ্রীনগরে পৈতৃক নিবাসে স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাসহ স্থানীয় প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ -১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব মাহি বি চৌধুরী এমপি এর বারিধারায় রাজনৈতিক কার্যালয়ে গতকাল সন্ধ্যায় দীর্ঘ বৈঠক অনুষ্ঠিত সম্পন্ন হয় ।

বিক্রমপুরের সচেতন নাগরিকের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শ্রীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক মোঃ মসিউর রহমান মামুন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-

কমিটির সদস্য মাকসুদ আলম ডাবলু, ব্যারিস্টার শিমুল কিবরিয়া, ইউজিসি’র পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোঃ কামাল হোসেন,

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আবদুল্লাহ আল মাসুদ এবং শিক্ষার্থী ফাহামিদা ইয়াসমীন দীবা ও সামিরা ইসলাম, ঢাকা ইমপিরিয়াল কলেজের উপাধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন মৃধা, সহকারী ইঞ্জিনিয়ার তানভীর মাহামুদুল হাসান আরাফাত, প্রমায়ণ ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস ফো

রাম প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শাহাদাত হোসেন আকাশসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়/কলেজের শিক্ষক ও  শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ব্যক্তিবর্গ।

জনাব মাহী বি চৌধুরি বলেন, “শ্রীনগরে জগদীশ চন্দ্র বসুর নামে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় জনগনের দাবিটি ইতোমধ্যে অনানু

ষ্ঠানিকভাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবগত করা হয়েছে এবং এ বিষয়ে তাকে শ্রীঘ্রই অফিসিয়াল চিঠির মাধ্যমে বাস্তবায়নের জন্য অনুরোধ করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।”

এমপি মহোদয়কে মুন্সিগঞ্জ-১ আসনকে শিক্ষা বান্ধব ও  প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়নের জন্য সুশীল সমাজের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়। উল্লেখ্য যে, এর পূর্বে ২০১৮ সালে তরুণ প্রজন্মের পক্ষ থেকে জাতীয় নির্বাচনের পূর্বে স্বনামধন্য লেখক আবদুর রশীদ খান

ও ঢালী আমিরুল ইসলাম, যগ্ন-সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম ও মোতাহের হোসেন, সহকারী অধ্যাপক আবু জাফর আহমেদ মুকুল ও

সহকারী অধ্যাপক শবনম শারমিন লুনা, ডাঃ রাশেদুল ইসলাম ও মোঃ আল আমিন হোসেন এর নেতৃত্বে ইশতেহার হস্তান্তর করা হয়েছিল। বিখ্যাত বিজ্ঞানীর স্যার জগদীশ চন্দ্র বসুর নামে ওপাড় বাংলায় বসু মানমন্দিরসহ শতাধিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

ইংল্যান্ডে ৫০ পাউন্ডের মুদ্রায় জগদীশচন্দ্র বসুর ছবি ছাপানো হয়েছে অথচ বাংলাদেশে তাঁর স্মৃতি রক্ষার্থে তেমন কিছু নেই বললেই চলে। সচেতন নাগরিকগনের প্রতিনিধিগন আশা করেন, এদেশের শিক্ষা,

সংস্কৃতির অন্যতম পাদপীঠস্থান বিক্রমপুরের অতীত ও বর্তমানকে সদয় বিবেচনায় নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগনের দীর্ঘদিনের এ প্রাণের দাবীটি খুব দ্রুত বাস্তবায়ন করবেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here