নোয়াদ্দায় গাছকাটায় মারামারিতে নারী শিশু আহত

5তোফাজ্জ্বল হোসেন ও তুষার আহাম্মেদ: টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আউটশাহী ইউনিয়নের নোয়াদ্দা গ্রামে পূর্ব বিরোধের জের হিসেবে গাছকাটা নিয়ে মারামারিতে নারী শিশুসহ একাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে টঙ্গীবাড়ী থানা পুলিশ।

এ ঘটনাটি ঘটে ৭ অক্টোবর আনুমানিক সকাল ৯টার দিকে। এ ঘটনায় ৩জনকে আসামী করে টঙ্গীবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ বিষয়ে টঙ্গীবাড়ী থানা পুলিশের তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। এজাহারে যাদেরকে আসামী করা হয়েছে তারা হচ্ছেন, আলী হোসেনের পুত্র মো: মহসিন শেখ, পিতা একই মো: বাচ্চু শেখ ও মৃত মোসলেম উদ্দিনের পুত্র আলী হোসেন।

আলী হোসেন হচ্ছেন আউটশাহী ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার বলে জানা গেছে। একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে এ ধরণের মারামারিতে লিপ্তের ঘটনায় স্থানীয়ভাবে নানা রকমের কথা শোনা যাচ্ছে। যেখানে জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি সকলের বিরোধের মিমাংসা করবেন সেখানে তিনি নিজেই মারামারিতে লিপ্ত হয়ে যান। এ মারামারিতে লোহার রড ও কাঠের ডাসা ব্যবহার করা হয়েছে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে এ জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ পাওয়া গেছে যে, স্থানীয়ভাবে রাস্তার পাশে সরকারি গাছ জনৈক ব্যক্তি বিক্রি করে দেন। তাকে কৌশলে সেই অভিযোগ থেকে তিনি বাঁচিয়ে আনেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে জানা যায়, নিজেদেও বসত ভিটার কিছু গাছ বিক্রির উদ্যোগ নেন। সেই মতে ঘটনার দিন গাছিয়ারা কাছ কাটার জন্য তাদেও বাড়িতে আসেন। এ সময় এজাহারে উল্লেখিত অভিযুক্তরা মো: শাহাবুদ্দিন হাওলাদারকে গাছ কাটাতে বাঁধা দেয় ও তার ওপর হামলা করে।

তাকে বাঁচাতে ছুটে আসেন তার পুত্র মো: মিদুল (১৩), স্ত্রী আমেনা বেগম ও তার পিতা আ: হামিদ হাওলাদার (৬৫)। এ সময় তারাও হামলার শিকার হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here