শ্রীনগরে নিখোঁজের ১ মাস ২০ দিন পর গোয়ালন্দ থেকে অটোরিক্সা উদ্ধার

sanjidমোঃ রেজাউল করিম রয়েলঃ শ্রীনগরে নিখোঁজের ১ মাস ২০ দিন পর রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ থেকে অটোরিক্সাটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। কিন্তু অটোরিক্সার কিশোর চালক সানজিদের(১৬) কোন সন্ধান মিলেনি। গত ২২ আগষ্ট উপজেলার বাড়ৈখালী থেকে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা সহ ১৬ বছরের কিশোর চালক সানজিদ নিখোঁজ হয়।

স্থানীয়রা জানায়, সানজিদ বাড়ৈখালী গ্রামের বিধবা আঁখি বেগমের ছেলে। ৩ বছর আগে আঁখি বেগমের স্বামী মারা যায়। মা ও ছোট বোনের মুখে দ’মুঠো ভাত তুলে দিতে সানজিদ পড়ালেখা ছেড়ে অটোরিক্সা চালানো শুরু করে।

সানজিদের মা আঁখি বেগম জানান, গত ২২ আগষ্ট শনিবার সকাল ১১ টার দিকে সানজিদ বাসা থেকে বের হয়ে ১২ টার দিকে গ্যারেজ থেকে অটোরিক্সা নিয়ে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন আঁখি বেগম বাদী হয়ে ২৩ আগষ্ট শ্রীনগর থানায় সাধারণ ডাইরি করে। কিন্তু পুলিশের কোন তৎপরতা ছিলনা বলে আঁখি বেগম অভিযোগ করেন।
গত এক সপ্তাহ ধরে কানাঘুষা চলতে থাকে বাড়ৈখালী এলাকার কালাম মেম্বারের বাড়ির পাশের ভাড়াটিয়া কলা বিক্রেতা আমির হোসেনের ছেলে বিল্লাল অটোটি ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।

এর সূত্র ধরে আঁখি বেগমের ভাই নিজস্ব মেধা খাটিয়ে গোয়ালন্দ গিয়ে অটোরিক্সাটি চিহ্নিত করে এর চালক আব্বাসকে সহ গোয়ালন্দ থানায় নিয়ে যায়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদে আব্বাস জানায় অটোটি সে তার খালাত ভাই বিল্লালের কাছ থেকে কিনেছে। বিল্লাল বাড়ৈখালী এলাকার কলা বিক্রেতা আমির হোসেনের ছেলে।

বিষয়টি জানার পর স্থানীয়রা আমির হোসেনকে আটক করে পুলিশে খবর দিলেও পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেনি বলে আঁখি বেগম অভিযোগ করেন। শ্রীনগর থানা পুলিশ অটোসহ আব্বাসকে শ্রীনগর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করছে

শ্রীনগর থানায় দায়েরকৃত সাধারণ ডাইরীটির তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই আঃ কাদির জানান, রাজবাড়ী থেকে একজকে আটক ও অটোরিক্সাটি উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ চালক সানজিদের সন্ধ্যান পেতে পুলিশ কাজ করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here