মিরকাদিমের কালিন্দীপাড়ার মসজিদের পাশে ময়লার ভাগাড়!

DSC_0253নিজস্ব প্রতিবেদক: মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মিরকাদিম পৌরসভার কালিন্দীপাড়া জামে মসজিদের পাশেই রয়েছে ড্রেন। তার পাশে রাস্তার উপর গড়ে উঠেছে ময়লার ভাগাড়। আর সেখান থেকে প্রতিনিয়ত বের হচ্ছে দুর্গন্ধ।

এই দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ এ এলাকার মানুষেরা। ফলে দুর্গন্ধের দূষণের শিকার হচ্ছেন মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসুল্লিরা। তার সাথে আরো শিকার হচ্ছেন রাস্তার পথচারীসহ স্থানীয় এলাকার সাধারণ মানুষেরা। এ পথে নাক মুখ বন্ধ কওে তবেই চলাচল করতে হচ্ছে স্থানীয়দের।

এদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ হচ্ছে পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে কয়েক দফায় জানানো হলেও কোন ব্যবস্থাই নেইনি তারা।

মূলত রিকাবিবাজার কাঁচাবাজারের সমস্ত ময়লা আবর্জনা ও স্থানীয়দের বাসা-বাড়ির ময়লা-আবর্জনা এখানে ফেলা হচ্ছে প্রতিদিন। এ ছাড়া মৃত গরু, ছাগলসহ অন্যান্য প্রাণীদের মৃতদেহও ফেলা হয় এই ভাগাড়ে। কিন্তু দুর্গন্ধ নি:ষ্কাশনের ব্যবস্থা করা হয়নি কোন দিন। বর্জ্য ফেলার পরিবেশ বান্ধব কোন পদ্ধতিও অনুসরণ করা হচ্ছে না এখানে। ময়লার স্তূপ এমন আকার ধারণ করেছে যে,

ড্রেন দিয়ে এখন আর পানি প্রবাহ দূরের কথা যেন নালায় পরিণত হয়েছে এটি। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। যদিও বেশ কয়েকজন জানালেন, পৌরসভা থেকে ময়লা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট কোনো স্থান না থাকায় বাধ্য হয়ে সবাই এখানে খালি জায়গায় ময়লা ফেলছেন।

স্থানীয়রা জানান, বাজার ও বাসা বাড়ির সকল ময়লা, প্লাস্টিক ও আবর্জনা এই খানেই ফেলা হচ্ছে। এতে করে যেমন রাস্তায় চলাচল, মসজিদে নামাজ আদায় ও ড্রেনে স্বাভাবিক পানি প্রবাহ বিঘ্নিত হয়েছে। পথচারী ও স্থানীয়দের অভিযোগ মিরকাদিম পৌরসভা প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হওয়া সত্ত্বেও মসজিদের পাশে এমন ময়লার ভাগাড়ে অতিষ্ট। কয়েক বছর ধরে এই ময়লার ভাগাড়ে বর্জ্য ফেলা হচ্ছে।

এছাড়াও ময়লার ভাগাড়ের পাশেই রয়েছে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও দোকান পাট। প্রতিদিন ময়লার ভাগাড়ের দুর্গন্ধ নিয়েই ব্যবসা প্রতিষ্ঠ চালিয়ে যাচ্ছেন দোকানদারেরা। অচিরেই এ ময়লার ভাগাড় সরিয়ে নেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এলাকাবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here