সিরাজদিখান স্বর্নের দোকানে চুরি

sirogganসিরাজদিখান নিউমার্টের সবচেয়ে বড় স্বর্নের দোকান ‘শান্ত জুয়েলার্সের’ মালিক শান্ত চোকদারের বাসায় কলিং বেল বাজিয়ে ভেতরে ঢুকে ৫০০ ভরি স্বর্ণর নগদ টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে। চুরি হওয়া স্বর্ণের দাম বর্তমান বাজারে প্রায় ৩ কোটি টাকার উপরে। এ ঘটনায় স্বর্ন ব্যাবসায়ী শান্ত চোকদার ক্রমশ্ব মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পরছেন।

সরেজমিন শান্ত চোকদারের বাড়ি যেয়ে দেখা যায় শান্ত চোকদার স্বর্ন ও টাকা লুট হওয়ার কারনে দিন দিন খাওযা দাওযা কমিয়ে খাটের উপর শুয়ে নির্বাক হয়ে আছেন,বাড়িতে আসা লোকজনের প্রশ্নের কোন ঠিকঠাক উত্তর দিতে পারছেন না।

থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা যায় গত ৫ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টায় সিরাজদিখান রশুনিয়া ইউনিয়নের আবিরপাড়া গ্রামের শান্ত জুয়েলার্সের মালিক শান্ত চোকদারের বাসায় কলিং বেলের শব্দ করলে বাসার দরজা খোলা মাত্র কালো বোরখা পরা মহিলা ও অজ্ঞাত একজন শান্ত চোকদারের নাকে রোমাল স্পর্শ করিয়ে আলমারির তালা ভেঙ্গে ৫০০ভরি স্বর্ন ও নগদ দুই লাখ টাকা নিয়ে যায় চোরেরা।

শান্ত জুয়েলার্সের মালিক শান্ত চোকদার বলেন, গত ৫ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টায় পাঁচ হাজার টাকা ধার নেওযার কথা বলে দানিয়াপাড়া গ্রামের খালেক ঢালীর(মুকিম ঢালী) বাড়ির ভারাটিয়া মোঃ মনসুর মিজির মেয়ে মোসাঃ তানিয়া আক্তার কালো বোরখা পরে আমার বাসায় এসে বাসায় কলিং বেলের শব্দ করলে আমি দরজা খোলা মাত্র তানিয়া ও অজ্ঞাত একজন আমার নাকে রোমাল র্স্পশ করালে আমি জ্ঞান হারাই। দুই দিন পরে আমাকে ফোনে না পেয়ে আমার সহযোগী ব্যাবসায়ী মালখানগর ইউনিয়নের তালতরা বাজারের স্বর্ন ব্যাবসায়ী শ্রী শম্ভু পোদ্দার ৭ অক্টোবর বিকালে আমার বাসায় আসিয়া আমাকে অচেতন অবস্থায় দেখে গ্রামের লোকজনকে ডেকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে আমাকে সুস্থ্য করেন। এ সময় স্বর্ন ও নগদ টাকা রাখার আলমারী খোলা দেখি। ওই দুই দিন আমার পরিবারের লোকজন আমার মেয়ের কাছে ঢাকা বাড়িধারা বাস্তলা জামালপুর টাওয়ারে ছিল।

চুরি হওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সিরাজদিখান সিনিয়র এএসপি সার্কেল মোঃ রাজিবুল ইসলাম,রশুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন, সিরাজদিখান থানা পুলিশের পরিদর্শক মুহাম্মদ আজাহারুল ইসলাম, সিরাজদিখান স্বর্ণ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি স্বর্ণ শিল্পী নারায়ন কর্মকার।

সিরাজদিখান থানার ওসি মুহাম্মদ রিজাউল হক বলেন, ঘটনাস্থলে এসে চুরি যাওয়া আলামত ও তার আশপাশের আলামত দেখেছি আমরা। অভিযুক্ত মোসাঃ তানিয়া আক্তার কোর্টে আত্মসমর্পন করতে হাজিরা দিতে গেলে কোট তাকে আটক করে জেল হাজতে পাঠান। আমরা আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড চেয়েছি।

গ্রাম নগর বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here