মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের দৃশ্যমান উন্নয়ন

136036616_2235057693317234_8480540243243939802_oমোঃ তুষার আহাম্মেদঃ
পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডে বর্তমান সরকারের আমলে ব্যাপক দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়েছে। ওয়ার্ডগুলোতে বইছে দিন বদলের হাওয়া। উন্নয়নের কারনে শহরের ওয়ার্ডগুলো যেন এক একটি আধুনিক শহরে পরিনত হয়েছে। শুধু তাই নয় বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে এলাকার রাস্তাঘাট পরিবর্তন হয়েছে।
এলাকার ছেলেমেয়েদের স্কুলে যাতায়াতও হচ্ছে শতভাগ। পরিবর্তনের ছোঁয়ায় বদলে গেছে সবকিছুই। পালাবদল ঘটেছে শহুরে অবকাঠামোতে,খাদ্যের প্রাপ্যতায়, জীবনযাত্রার মানে, তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার,যোগাযোগ ব্যবস্থায়, শিক্ষায় ও স্বাস্থ্যে। শহরের বিভিন্ন স্থানেই চোখে পড়ে সরকারের দৃশ্যমান এবং বাস্তবমুখী সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড। পৌরসভার খালইষ্ট, জগধাত্রীপাড়া, মালপাড়া, বাগমামুদালিপাড়া, মানিকপুর, জমিদারপাড়া এসব এলাকা নিয়ে গঠিত ২ নং ওয়ার্ড।
আগামী ৩০ শে জানুয়ারি অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন। ওয়ার্ডটিতে এখন বইছে নির্বাচনি হাওয়া। ভোটারেদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ লক্ষ্য করা গেছে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে পাড়া- মহলস্নার সর্বত্র চলছে নির্বাচনি আলোচনা। দ্বিতীয় বারের মতো বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় প্রতীক নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান পৌর মেয়র হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব।
তাকে ঘিরে ভোটাদের ভাবনাটাই যেন অন্যরকম। দল-মত নির্বিশেষে পৌরসভার উন্নয়ন জন্য এই প্রার্থীকে বিজয় করতে কাজ করছেন ওয়ার্ডবাসীরা। ওয়ার্ডবাসীদের সবার ভাবনা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে নৌকা প্রতীকের বিজয় চাচ্ছেন। ভোটাররা বলছেন হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব পূনরায় নির্বাচিত হলে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভায় ব্যাপক উন্নয়ন হবে।
হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব নৌকার টিকিট পাওয়ায় ভোটার ও সাধারণ মানুষের মধ্যে আনন্দের বন্যা বইছে। সর্বপরি পাড়া-মহল্লায় ভোটার ও নির্বাচনি উত্তাপ। এদিকে আসন্ন নির্বাচন ঘিরে পোষ্টার, ব্যানার, ফেষ্টুনে ছেয়ে গেছে এলাকা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা চালিয়ে যাচ্ছে প্রচার- প্রচারনা।
ভোটারা বলছে, উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় তারা নৌকার বিকল্প কিছু ভাবছে না। দল মত নির্বিশেষে নৌকার প্রার্থী হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপস্নবের নানামুখী উন্নয়নের ভূয়সী প্রশাংসা করছেন সকলে।
ভোটারদের ভাবনা পূনরায় হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব নির্বাচিত হলে ২নং ওয়ার্ডকে আরো আধুনিক ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলবে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপস্নবের বিকল্প হিবেসে কাউকে নিয়ে ভাবছেননা সাধারন ভোটারা।
স্থাণীয় ভোটার জসিম উদ্দিন জানান, পৌরসভার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপস্নবের বিকল্প নেই। ওনি আমাদের কোন স্বপ্ন্‌ দেখায়নি,আমাদের স্বপ্নগুলোকে পূরন করেছে। এলাকায় দৃশ্যমান ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। আমি কেন এলাকার সকলেই হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লবের বিকল্প হিসেবে কাউকে নিয়ে ভাবছে না।
নারী ভোটার ছাবিনা বেগম জানান, মেয়র হিসেবে বিপ্লবকেই চাই। পাড়া- মহল্লায় একাধিক কাউন্সিলর প্রার্থীকে নিয়ে ভোটারদের আলাদা ভাবনা থাকলেও মেয়র হিসেবে সবারই ভাবনা বিপ্লবকে নিয়ে। আমি দোয়া করি আল্লাহ তাকে নেক হায়াত দান করুক।
উল্লেখ্য – আগামী ৩০ শে ডিসেম্বর অুনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন। এই ওয়ার্ডটিতে মোট ভোটার ৭,১৬১ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৩,৫২৭ জন এবং নারী ভোটার ৩,৬৩৬ জন। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা চারটি। ওই দিন ভোটাররা সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here