মিরকাদিমের লঞ্চঘাটের রাস্তাটি খানাখন্দে ভরা

5মোহাম্মদ সেলিম:

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মিরকাদিম পৌরসভার একমাত্র লঞ্চঘাটের রাস্তাটি খানাখন্দে ভরা। এর ফলে এ রাস্তা দিয়ে চলাচল সাধারণ মানুষের মারাত্নক অসুবিধা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। এ রাস্তাটি নানা কারণে এখানে গুরুত্ব বহন করছে। কারণ হচ্ছে এখানে সরকারিভাবে মিরকাদিম নদী বন্দরের অফিস রয়েছে। এছাড়া জেলার সর্ব বৃহৎ মাছের আড়ৎ রয়েছে এখানে।

আরো রয়েছে নদী বন্দরের দক্ষিণাঞ্চলের ঢাকার পরেই লঞ্চ টার্মিনাল। নানা দিক বিবেচনায় এ রাস্তাটি সবচেয়ে গুরুত্ব পূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এখানে। তাই এ খানাখন্দ ভরা রাস্তা দিয়ে এ পথে প্রতিদিনই হাজার হাজার লোকজন যাতায়াত করে থাকে। মিরকাদিম পৌরসভার প্রাচীরের দক্ষিণ দিয়ে এর প্রধান সড়কটি পূর্ব দিকের লঞ্চঘাটের দিকে চলে গেছে।

এ রাস্তার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বেহাল দশা বিরাজ করছে। রাস্তার ঢালাই উঠে গিয়ে এর নিচের অংশের লোহার রিং বর্তমানে উকি ঝুঁকি মারছে। এছাড়া রাস্তার সবকটি অংশেই ইতোমধ্যে পাথরের কুঁচি ঢালাই উঠে গিয়ে তার গুড়া গুড়া অংশ রাস্তার চারিদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েছে।

তাতে পা হাটা পথচারীদের বিড়ম্বনায় ফেলে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুস্ক মৌসুমে এ পাথরের গুড়োর অংশ থেকে রাস্তাময় ধুলোবালিতে পথচারীদের মুখচাপা দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। রাস্তাটিতে খানাখন্দের কারণে বৃষ্টির পানিতে পথচারীদের নানা রকমের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে বলে অনেকেই অভিমত প্রকাশ করেছেন।

বর্তমান রাস্তার বেহাল দশার দৃশ্য দেখে কোনভাবে মনে পরে না যে রাস্তাটি আগে ভালোভাবে নির্মাণ করা হয়েছে। তবে এ রাস্তাটি নির্মাণে অনিয়ম কিংবা দুর্নীতির ছাপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে বলে অনেকেই মনে করছেন। তা না হলে এ রাস্তাটির এমন দশা হতো না।

মিরকাদিম পৌর নাগরিক কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, খুব শীঘ্রই এ রাস্তা পুন:সংস্কার করে মেরামত করা উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here