রাজশাহীর পুঠিয়ায় গৃহবধুকে শ্লীলতাহানি ২০ হাজারে মিমাংসার চেষ্টা

26dbebd37fd59f4fcea9256f84211a79-6007d6c242bf4মাসুদ রানা রাব্বানী:

রাজশাহীর পুঠিয়ায় ফাঁকা বাড়িতে গৃহবধূকে (২৮) ষষ্ঠি সরকার নামের স্থানীয় একজন কাপড় ব্যবসায়ী শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনা স্থানীয় একটি মহল ২০ হাজার টাকায় আপোষ করার জন্য চাপ দিচ্ছিল। পরে ভূক্তভোগি ওই গৃহবধু থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

ষষ্ঠি সরকার উপজেলার ঝলমলিয়া বাজারের কাপুড় ব্যবসায়ী ও একই এলাকার সম্ভু চরণশীলের ছেলে। গত (১১ জানুয়ারী) সোমবার সকালে প্রতিবেশী ওই গৃহবধুর বাড়িতে শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটে।

ভূক্তভোগির পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের ন্যায় গত ১১ জানুয়ারী সকালের দিকে বাড়ির লোকজন যে যার মত কাজে চলে যায়। এ সময় ফাঁকা বাড়িতে ওই গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করছিল প্রতিবেশী ষষ্ঠি সরকার। তখন ওই গৃহবধু চিৎকার শুরু করলে আসে পাশের লোকজন ছুটে আসেন।

বিষয়টি টের পেয়ে ষষ্ঠি সরকার পালিয়ে যায়। আর এ বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করতে ষষ্ঠি সরকার স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজনদের মাধ্যমে ওই পরিবারকে চাপ দিতে থাকে। এক পর্যায়ে ওই গৃহবধূ ১৯ জানুয়ারী সকালে নারী নির্যাতন আইনে থানায় একটি অভিযোগ দেয়।

এ খবর পেয়ে ওই প্রভাবশালী মহল গত রাতেই একটি সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে ভূক্তভোগিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে দেবেন বলে আশ্বাস দেন।

পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মানিক মন্ডল বলেন, গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় গতরাতে একটি সালিশ বসেছিল। সালিশকারীরা ভূক্তভোগি ওই পরিবারকে কিছু জরিমানা আদায় করে দিবেন এমন ঘটনা শুনেছি। আবার ওই গৃহবধূ থানায় লিখিত ভাবে নারী নির্যাতনের একটি অভিযোগ করেছেন।

তবে ষষ্ঠি সরকার বলেন, ওই গৃহবধূর সাথে শ্লীলতাহানি নয়, তার সাথে আর্থিক একটা লেনদেন বিষয় রয়েছে। যা গতকাল (১৯ জানুয়ারী) রাতে এলাকায় বসে একটি আপোষ মিমাংশা করা হয়েছে। আর থানায় অভিযোগ দেয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার ওই ভূক্তভোগি গৃহবধু শ্লীলতাহানির একটা অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগটি এখন তদন্তাধিন রয়েছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here