রাজশাহীতে ছোট ভাইয়ের ইটের আঘাতে বড় ভাইয়ের মৃত্যু

Mardar-19.04.2021মাসুদ রানা রাব্বানী, রাজশাহী:

রাজশাহী মহানগরীতে আপন ছোট ভাই মোঃ শাফিউদ্দীন সাফির (৩৩) ইটের আঘাটে আহত বড় ভাই উজ্জল শেখের (৫৫) মৃত্যু হয়েছে।

কাল রোববার বিকেল ৪ টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৮নং ওয়ার্ডে মারা যান তিনি।

নিহত উজ্জল শেখ মহানগরীর বোয়ালিয়া থানাধিন রানীনগর সিটি হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকার মৃত বদর উদ্দিনের ছেলে।

এর অগে (গত ৩ এপ্রিল) শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে জমি সংক্রান্ত জের ধরে সফি বাড়ির ছাদের উপর থেকে ইট ছুড়ে তার বড় ভাই উজ্জলের মাথায় আঘাত করে। এতে উজ্জল রক্তাক্ত জখম হয়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে রামেকের ৮ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করেন।

১৫দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত রোববার বিকেল ৪টার দিকে মৃত্যু বরণ করেন উজ্জল।

নিহত উজ্জলের স্ত্রী ডলি জানায়, শাফিউদ্দীন সাফি আমার দেবর। সে বদমেজাজি ও শয়তান প্রকৃতির মানুষ। সামন্য কথাকাটাকাটিতেই আমার স্বামীকে বাড়ির দোতলার ছাদ থেকে মাথায় ইট ছুড়ে মেরে আহত করে সে। গত ১৫ দিন রামেক হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত রোববার বিকেলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে উজ্জল। এর আগেও আমার ভাসুর শাহীনের হাত ভেঙ্গে দেয় ঘাতক সাফি ।

তিনি আরও বলেন স্বামীর হত্যাকারি ও তার সহযোগীদের শফির বিচারের দাবিতে বোয়ালিয়া মডেল থানায় চারজনকে আসামী করে একটি হত্যা দায়ের করা হয়েছে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মন।
তিনি জানান, ছোট ভাই সাফির ইটের আঘাতে আহত বড় ভাই উজ্জলের মৃত্যু হয়েছে।

গত বোববার বিলেল ৪টায় রামেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। লাশ রামেক মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ডলি বাদি হয়ে চারজন আসামীকে করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
গতকাল সোমবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান ওসি ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here