মুন্সীগঞ্জে ১০ জুয়াড়ি গ্রেফতার

at 9.54.53 PM (4)র‌্যাবের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই সমাজে বিশৃংখলা সৃষ্টিকারী, মাদক ব্যবসায়ী, জঙ্গী সন্ত্রাসী, অস্ত্র ব্যবসায়ী, ডাকাত, জলদস্যু, কালোবাজারী ও মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ০৩/০৮/২০২১ ইং তারিখ আনুমানিক ২০.০০ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে

জানা যায় যে, মুন্সীগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন গোয়ালঘুর্ণি সাকিনস্থ মস্তান বাজার ভূবনগড়া গলির ভিতর জনৈক কালু মোল্লার এক চালা টিনের ঘরের ভিতর কতিপয় ব্যক্তিরা অর্থের বিনিময়ে তাস দ্বারা প্রকাশ্যে জুয়া খেলতেছে।

এরুপ তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর কোম্পনী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার এ কে এম মুনিরুল আলম এর নেতৃত্বে একটি চৌকস আভিযানিক দল উল্লেখিত ঘটনা স্থলে অর্থের বিনিময়ে তাস দ্বারা জুয়া খেলা বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে একই তারিখ আনুমানিক ২১.৩৫ ঘটিকার সময় নিম্মলিখিত জুয়াড়িদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত জুয়াড়িরা হচ্ছেন
১। জয়নাল আবেদীন (৫২), পিতা- মৃত জুলহাস মিয়া, মাতা- গোলেনুর বেগম, গ্রাম- দক্ষিন রাম গোপালপুর (১নং ওয়ার্ড),

২। মোঃ ইব্রাহিম (৪৫), পিতা- মৃত মিল্লাত আলী সরদার, মাতা- মৃত উম্মে হানী, গ্রাম- আদিরা তলা (৩নং ওয়ার্ড),
৩। মোঃ রবি (৪২), পিতা- আব্দুর জব্বার হাওলাদার, মাতা- মৃত ছোবেদা বেগম, গ্রাম- গোয়াল ঘুর্নি (১নং ওয়ার্ড),

৪। মোঃ রানা মোল্লা (৩৫), পিতা- মোঃ সুজন মোল্লা, মাতা- সুফিয়া বেগম, গ্রাম- দক্ষিন কাগজিপাড়া (৭নং ওয়ার্ড),
৫। মোঃ পলাশ (৩৮), পিতা- মৃত আঃ ছমিদ শেখ, মাতা- মৃত শহর বানু, গ্রাম- মীরাপাড়া (২নং ওয়ার্ড),
৬। শাহিন মোল্লা (৪৫), পিতা- মৃত ফজর হক মোল্লা, মাতা- সুফিয়া বেগম, গ্রাম- ভূবন গাড়া (৭নং ওয়ার্ড),

৭। মোঃ খোরশেদ (৫৮), পিতা- মৃত ফালান বেপারী, মাতা- রেজিয়া বেগম, গ্রাম- মুক্তারপুর বাগবাড়ী (৩নং ওয়ার্ড),
৮। মোঃ শাহাদাত (৪০), পিতা- বাদশা মিয়া, মাতা- মৃত মমতা বেগম, গ্রাম- দক্ষিন রাম গোপালপুর (১নং ওয়ার্ড), সর্বথানা- মুন্সীগঞ্জ সদর,

৯। মোঃ আবুল কালাম (৪১), পিতা- মৃত হেকমত আলী দোকনদান, মাতা- সাজু বেগম, গ্রাম- বাসিরা, থানা- লৌহজং, এ/পি- তিলাদি চর কমলা ঘাট (রানার বাড়ীর ভাড়াটিয়া), থানা- মুন্সীগঞ্জ সদর, জেলা-মুন্সীগঞ্জ,
১০। মোঃ নুুরুজ্জামান (৫০), পিতা- জয়নাল আবেদিন হাওলাদার, মাতা- রাহিমা বেগম, গ্রাম- চলাবঙ্গা (৫নং

ওয়ার্ড), থানা- আমতলী, জেলা-বরগুনা, এ/পি- গোয়াল ঘুর্নি (জব্বার হাওলাদারের ভাড়াটিয়া), থানা- মুন্সীগঞ্জ সদর, জেলা- মুন্সীগঞ্জ
উদ্ধারকৃত মালামাল হচ্ছে তাস ৩ সেট। জুয়া খেলায় ব্যবহৃত নগদ ৮০ হাজার ১০০ টাকা।

বর্ণিত জুয়াড়ি আসামীরা মোঃ কালু মোল্লার বসত ঘরে দীর্ঘদিন ধরে জুয়ার আসর বসিয়ে নিয়মিত প্রকাশ্যে জুয়া খেলে আসছিল। দিন দিন অর্থের বিনিময়ে জুয়া খেলা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই র‌্যাবের প্রকাশ্যে অর্থের বিনিময়ে জুয়া খেলা বিরোধী অভিযান অব্যহত থাকবে।

উক্ত জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ জেলার সদর থানায় প্রকাশ্য জুয়া আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here