মুন্সীগঞ্জে আগাম ফুলকপির চারা নিয়ে কৃষকরা বিপাকে

IMG_1354মোহাম্মদ সেলিম ও সাগর মাহমুদ:
বৈরি আবহাওয়া ও অতিমাত্রায় বৃষ্টির কারণে মুন্সীগঞ্জে আগাম ফুলকপি চারা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন মৌসুমী কৃষকরা।

এই নিয়ে উৎকন্ঠায় ভুগছেন কৃষকরা। এদিকে উৎপাদিত চারা গাছ বিক্রি না হওয়ায় একদফা ফুলকপি চারা ফেলে দিয়েছেন কৃষকরা। অন্যদিকে সিন্ডিকেট করে বিভিন্ন বীজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে ব্যবসায়িরা। তাতে মহা বিপাকে পড়েছেন মুন্সীগঞ্জে আগাম বীজতলা তৈরিকারী কৃষকরা।

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা পঞ্চসার ইউনিয়নের বণিক্যপাড়া এলাকায় একাধিক কৃষক রবি মৌসুমকে সামনে রেখে বিভিন্ন চারা আবাদের ব্যবসা করেন। এই চারা আবাদের ব্যবসার উপরে এখানকার কৃষকরা পরিবার পরিজন নিয়ে বেঁচে থাকেন।

কিন্তু এবার তেমন কোন চারা বিক্রি হচ্ছে না বলে ব্যবসায়িরা এ প্রতিবেদক জানিয়েছেন। সাধারণত বাংলা মাসের ভাদ্র মাস থেকে আগাম বীজতলার চারা ব্যবসার মৌসুম শুরু হয়। এই সময়ের চারা গাছই পরে আগাম ফলন হিসেবে শীতের সবজি বাজারে আসতে শুরু করে। কিন্তু ভাদ্র ও চলতি শ্রাবণ মাসে প্রচুর পরিমাণ বৃষ্টিপাত হওয়ায় বীজতলা নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বৃষ্টির কারণে নিচু এলাকায় বর্ষার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় এবার কৃষকরা আগাম সবজি আবাদ করতে পারছে না। এছাড়া বৃষ্টির কারণে উঁচু এলাকায় জলবদ্ধতা দেখা দিয়েছে জমিতে। তাতেও আগাম সবজি আবাদে বাধার মুখে পড়েছে কৃষকরা। কৃষকরা ধারণা করছে এবার আগাম শীতের সবজি স্থানীয় বাজারে বিলম্বে আসতে পারে।

অন্যদিকে গত বছরের তুলনায় এবার সকল ধরণের সবজির বীজ কয়েক গুণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে বলে কৃষকরা অভিযোগ তুলেছেন।

স্থানীয় কৃষকরা দাবি করছেন স্থানীয় বাজারে বীজ ব্যবসায়িরা সিন্ডিকেট করে এবার সবজি বীজ বিক্রি করছেন। গত বারের তুলনায় এবার বীজের দাম আকাশ পাতাল রয়েছে। তারা দাবি করেন এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসন সঠিকভাবে নজরধারী করুক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here