মোল্লাকান্দির ইউসুফ-জাহাঙ্গীরসহ চারজন কারাগারে

pic-1 jahangir sarkar & Yusuf Fakirনিজস্ব প্রতিবেদক:

মুন্সীগঞ্জে মোল্লাকান্দির ব্যক্তিদের হেফাজত থেকে ককটেল তৈরির সরঞ্জাম ও বিয়ার উদ্ধারের ঘটনার মামলায় ইউপি সদস্যসহ চার আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার আসামির জামিন চাইলে আদালতের বিচারক রোকেয়া রহমান তাদের জামিন মঞ্জুর না করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।

pic Khalil Fokir 13.10.2021কারাগারে পাঠানো আসামিরা হলেন, মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের সদস্য আবুল ফকির, তার দুই ভাই ইউসুফ ফকির, খলিল ফকির ও জাহাঙ্গীর সরকার। এদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্রসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

পুলিশ জানায়, গত ১৯ আগস্ট বিকেল ৪টার দিকে মোল্লাকান্দির মহেশপুর গ্রামের সুরুজ হাওলাদারের জিম্মায় থাকা খলিল ফকিরের মজুদকৃত ৪০৮ ক্যান বিয়ার, ককটেল তৈরির ৫ কেজি গান পাউডার ও ২ কেজির ওপরে কাঁচের গুড়া উদ্ধার করে ডিবি পুলিশ। এ ঘটনায় মোল্লাকান্দির লাল মিয়া ফকিরের ছেলে খলিল ফকির, ইউসুফ ফকির ও তাদের আরেক সহোদর ইউপি সদস্য আবুল ফকির এবং মৃত কাশেম সরকারের ছেলে জাহাঙ্গীর

সরকারকে আসামি করে ডিবি পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। এরা মোল্লাকান্দিতে নানাভাবে আলোচিত ব্যক্তি। ইতোপূর্বে আসামিরা পলাতক ছিলো। উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জামিনে ছিলো বলে আসামিদের আইনজীবী হাবিবুর রহমান জানিয়েছেন।

তিনি জানান, এই মামলায় বুববার তাদের আগাম জামিনের শেষদিন ছিলো। তারা মুন্সীগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর না করে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেয়। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন এপিপি অ্যাডভোকেট নাসিমা আক্তার।

এদের মধ্যে জাহাঙ্গীর সরকার শর্টগান, নাইন এম এম এবং ইউসুফ ফকিরকে দেড়হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট ও ইয়াবা বিক্রির সাড়ে ৬ লাখ টাকাসহ র‌্যাব গ্রেপ্তার করেছিলো। সরকারি কাজে বাঁধা, অস্ত্র ও মাদকসহ ৫ থেকে ৬টি করে মামলা রয়েছে এদের বিরুদ্ধে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here